প্যারিস দূতাবাসে জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন

577
0
Paris Dutabas

ফয়সাল আহাম্মেদ দ্বীপ, ফ্রান্স থেকেঃ উৎসবমুখর পরিবেশ, শ্রদ্ধা আর ভালবাসার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ দূতাবাস প্যারিসের উদ্যোগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান -এর ৯৯তম জন্মবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতে মান্যবর রাষ্ট্রদূত শিশু-কিশোরদের নিয়ে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে ফুলেল শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করেন। এরপর, মুক্তিযোদ্ধা ও বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

এরপর পবিত্র কুরআন ও অন্যান্য ধর্মীয় গ্রন্থ থেকে পাঠ করা হয় এবং বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের সদস্যের রূহের মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত ও বিশেষ প্রার্থনা করা হয়।

এছাড়াও, দিবসটি উপলক্ষ্যে মহামান্য রাষ্ট্রপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী , মাননীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও মাননীয় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করা হয়। রাষ্ট্রদূত কাজী ইমতিয়াজ হোসাইনের সভাপতিত্বে এবং প্রথম সচিব নির্জর অধিকারীর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সভাপতি বেনজির আহমেদ সেলিম, সাধারন সম্পাদক মহসিন উদ্দিন খান লিটন, মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মিয়া জামিরুল ইসলাম।

দিবসটি উপলক্ষে চিত্রাঙ্কন ও বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ শীর্ষক কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। ৬ থেকে ১০ বছরের শিশু কিশোররা চিত্রাঙ্কন ও এবং ১১ থেকে ১৪ বছরের শিশু-কিশোররা কুইজ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। এছাড়া শিশু কিশোরদের অংশগ্রহণে একটি মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
মান্যবর রাষ্ট্রদূত উপস্থিত শিশু কিশোর এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে জন্মদিনের কেক কাটেন। অনুষ্ঠানের শেষে প্রতিযোগীদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করা হয়। উল্লেখ্য, পুরষ্কার হিসেবে বঙ্গবন্ধুর জীবন অবলম্বনে রচিত গ্রাফিক নভেল- মুজিব অংশগ্রহণকারী সকল প্রতিযোগীর হাতে তুলে দেন রাষ্ট্রদূত কাজী ইমতিয়াজ হোসেন।

অনুষ্ঠানে আগত বক্তারা বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন এবং নতুন প্রজন্মের কাছে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও বাংলাদেশের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরার উপর গুরত্ব আরোপ করেন। সমাপনী বক্তব্যে, বঙ্গবন্ধুর প্রতি তাঁর শ্রদ্ধা, ভালবাসা ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করে রাষ্ট্রদূত কাজী ইমতিয়াজ হোসেন বঙ্গবন্ধুর জীবন ও আদর্শ ও তাঁর কর্মময় সংগ্রামী জীবনের উপর আলোচনা করেন এবং শিশু কিশোরদের বঙ্গবন্ধুর আদর্শে জীবন গড়ার আহ্বান জানান। রাষ্ট্রদূত বঙ্গবন্ধুর জীবনাদর্শ নতুন প্রজন্মকে জানাতে প্রতিটি বাংলাদেশি পিতামাতার প্রতি আহবান জানান, যেন তারা বঙ্গবন্ধুর জীবন থেকে সততা, দেশপ্রেম, মানবতা, সহনশীলতা ও আত্মত্যাগের শিক্ষা অর্জন করতে পারে। পরিশেষে, তিনি জাতির পিতা সম্পর্কে আরো জানতে শিশু-কিশোরদের আহ্বান জানান। তিনি আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বে সুখী ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায়, জাতির পিতার স্বপ্নের ‘সোনার বাংলা’ গঠনে দৃপ্ত পদক্ষেপে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। তিনি বলেন, আজকের শিশু-কিশোররা ভবিষ্যতে দেশের নেতত্ব দেবে এবং বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাকে বাস্তবে রূপান্তরিত করার জন্য তাদেরও ভবিষ্যতে কাজ করতে হবে।

অনুষ্ঠানের শেষে সকলকে বাংলাদেশি খাবারে আপ্যায়িত করা হয়।

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
নুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!